Monday, May 27, 2024
HomeNewsমেম্বার পদপ্রার্থী নুরুল আলম'র প্রচারণার প্রথম দিনেই বাজিমাত;সুস্থ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি

মেম্বার পদপ্রার্থী নুরুল আলম’র প্রচারণার প্রথম দিনেই বাজিমাত;সুস্থ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি

মহেশখালী উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়ন (Union) পরিষদ নির্বাচনে ০৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী বিশিষ্ট সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী সফল ছাত্রনেতা হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম প্রতীক পেয়ে প্রচারণার প্রথম দিনেই বাজিমাত সৃষ্টি করেছেন।

২৫ মার্চ (বৃহস্পতিবার) বিকালে হোয়নাক ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার মহেশখালী উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মনজুর মোর্শেদ’র কাছ থেকে প্রতীক নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণায় নেমে পড়েন হোয়ানক ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ০৮ নং ওয়ার্ডের সর্বসাধারণের মনোনীত মেম্বার পদপ্রার্থী হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম। তার নির্বাচনী প্রতীক ‘আপেল’ মার্কা নিয়ে প্রচারণায় নেমে পড়েন তিনি।

২৫ মার্চ (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যায় তার নির্বাচনী এলাকায় আনুষ্ঠানিকভাবে পথসভার মধ্য দিয়ে তিনি নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় প্রথম দিন ব্যস্ত সময় পার করেন। তার প্রথম পথসভা জনসভায় পরিণত হয়।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী বৈশ্বিক মহামারী করোনা পরিস্থিতি স্বভাবিক থাকলে আগামী ১১ এপ্রিল প্রথম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে হোয়ানক ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। সেই বিষয় মাথায় রেখে হোয়ানক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচারণা যে যার মত করে সু-কৌশলে পোষ্টার, ব্যানার, চায়ের দোকানে প্রচার সহ বিভিন্ন পন্হায় ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই সুযোগে হাটে, বাজারে, দোকানপাটে ও বাড়িঘরে ভোটারেরা তাদের পছন্দের প্রার্থীদের নিয়ে চুল ছেড়া বিশ্লেষণ শুরু করে দিয়েছে এবং বিগত সময়ে যারা জনপ্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করেছে তাদের কৃতকর্মের আলাপ আলোচনা করেই যাচ্ছে।

হোয়ানক ইউনিয়নের ০৮নং ওয়ার্ডের দলমত নির্বিশেষে সৎ যোগ্য, ন্যায়পরায়ন মেম্বার প্রার্থী হিসেবে ভোটারদের মাঝে যাদের নাম কানাঘোষা চলছে তাদের মধ্যে হোয়ানক ইউনিয়নের মোহরা কাটা গ্রামের বাসিন্দা সফল ছাত্রনেতা, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী নব দিগন্ত ব্লাড ব্যাংক কক্সবাজার জেলা প্রেসিডেন্ট ‘আপেল’ মার্কার মেম্বার পদপ্রার্থী হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম সর্বসাধারণের সমর্থন নিয়ে মেম্বার পদে তার নির্বাচনী এলাকায় প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কবে

সফল ছাত্রনেতা হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী নব দিগন্ত ব্লাড ব্যাংক সহ এলাকার বিভিন্ন সমাজিক সংগঠন, মসজিদ মাদ্রাসা সহ সমাজিক নানান উন্নয়নমূলক কাজে জড়িত। তিনি তার উপর অর্পিত দায়িত্ব শতভাগ সততা ও নিষ্ঠার সাথে পালন করে সাধারণ জণগণের মন জয় করে নিয়েছেন। হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম প্রতীক পেয়ে মহেশখালী ট্রিবিউন কে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে বলেন, আমি হোয়ানক ইউনিয়নের অবহিলিত ০৮নং ওয়ার্ড কে মডেল ওয়ার্ড হিসেবে রুপান্তর করতে চাই এবং মাদক, সন্ত্রাস, ইয়াবামুক্ত আধুনিক ও ডিজিটাল ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলে জনগণের মৌলিক অধিকার শতভাগ নিশ্চায়নে কাজ করতে চাই। আমি নির্বাচনে জয়ী হলে জনগণের মৌলিক অধিকার শতভাগ নিশ্চয়ান করে সততা ও নিষ্ঠার সাথে জনগণের সেবক হিসেবে কাজ করতে চাই। আমি শতভাগ আশাবাদী এ-ই নির্বাচনে জণগণ আমাকে নির্বাচিত করবে। কারণঃ আমি লেখাপড়া শেষ করে নির্বাচনে নেমে পড়ি। আমার নির্বাচনী এলাকা হোয়ানক ইউনিয়নের ০৮ নং ওয়ার্ডের সর্বসাধারণের সমর্থন নিয়ে মেম্বার প্রার্থী হিসেবে জনগণের মাঝে হাজির হয়েছি। উল্লেখ্য হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম ইতিমধ্যে এলাকার মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল সহ বিভিন্ন সমাজিক উন্নয়নমূলক কাজ করে সাধারণ জণগণের হৃদয়ে স্হান করে নিয়েছেন।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কবে

তিনি যদি এলাকার জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়- তাহলে এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন সহ সাধারণ জণগণের মৌলিক অধিকার শতভাগ নিশ্চিত হবে বলে আশাবাদী অত্র ওয়ার্ডের জনগণ। সর্বোপরি অত্র ইউনিয়নে একজন পরিচ্ছন্ন সমাজসেবক, তরুণ রাজনীতিবিদ ও জনবান্ধব বিবেচনায় ০৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদে হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম জনগণের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন। হোয়ানক ইউনিয়নের ০৮ নং ওয়ার্ডের সাধারণ জনতা থেকে শুরু করে যুব ও ছাত্র সমাজ, আলেম সমাজ সহ এলাকার এক বিশাল জনগোষ্ঠীর সমর্থনও রয়েছে হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম’র পক্ষে। এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণ মনে করেন, তিনি মেম্বার নির্বাচিত হলে এলাকায় উন্নয়ন ও সর্বস্থরের জণগণের ভাগ্যের ব্যাপক পরিবর্তন হবে। কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, জানা যায়, হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম একজন সৎ, কর্মী ও জনবান্ধব হিসেবে সবসময় জনগনের পাশে থেকে নিরলসভাবে কাজ করে থাকেন, জনগনের স্বার্থে দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে কাজ করে যান তিনি। তাই আগামী নির্বাচনে হোয়ানক ইউনিয়নের ০৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার হিসেবে তাকেই নির্বাচিত করবে সর্বস্তরের সর্বসাধারণ।

সুস্থ ও নিরপেক্ষ অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন নিয়ে তিনি বলেন, এলাকার কিছু কুচক্রী মহল আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা সহ বিভিন্নভাবে আমাকে হয়রানির চেষ্টা করে যাচ্ছে। আমি মহেশখালী উপজেলা প্রশাসন সহ নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চায়, কুচক্রী মহল আমাকে নানাভাবে হয়রানির চেষ্টা করে যাচ্ছে। প্রশাসনের প্রতি আমার অনুরোধ আপনারা নির্বাচনী পরিবেশ যাতে নষ্ট না হয়, জনগণ যেন তাতের মৌলিক অধিকার ভোট পছন্দের প্রার্থীদের দিয়ে আগামী ৫ বছরের জন্য তাদের প্রতিনিধি নির্বাচিত করতে পারে সে সুযোগ করে দিবেন।

সর্বোপরি হোয়ানক ইউনিয়নের ০৮ নং ওয়ার্ডের সর্বসাধারণের প্রতি আমার আকুল আবেদন আপনারা যদি আমাকে যোগ্য মনে করেন আগামী ১১ এপ্রিল এপ্রিল আমার প্রতীক ‘আপেল’ মার্কায় ভোট দিয়ে ব্যালেট বিপ্লবের মাধ্যমে প্রমাণ করবেন আপনারা সাধারণ জণগণ সবসময় সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে আছেন।

Related News
- Advertisment -

Popular News

error: Content is protected !!