Monday, February 26, 2024
HomeNewsযেকোনো মূহুর্তে ওয়াজের ময়দানে নিষিদ্ধ হতে পারে তাহেরী

যেকোনো মূহুর্তে ওয়াজের ময়দানে নিষিদ্ধ হতে পারে তাহেরী

যেকোনো মূহুর্তে ওয়াজের ময়দানে নিষিদ্ধ হতে পারে মুফতি গিয়াস উদ্দিন তাহেরী। সম্প্রতি তার বিতর্কিত কথাবার্তা ও ইসলাম নিয়ে অশোভন আচার ও মন্তব্য, এবং কুরুচিপূর্ণ গান বাজনা সাধারণ মানুষের কাছে ইসলাম সম্পর্কে বিরূপ ধারণার জন্ম দিচ্ছে বলে জানা যায়।

দেশের আলেমসমাজ, ইসলামী চিন্তাবিদগন ও ইসলামী ফাউন্ডেশনের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা মনে করেন সুন্নি নামধারী তথাকথিত বিতর্কিত বক্তা মুফতি গিয়াস উদ্দিন তাহেরী দেশের সাধারণ মানুষের সরল বিশ্বাস নিয়ে ধর্মের নামে ব্যবসা করছেন। এবং ফেসবুক ইউটিউবে ভাইরাল হওয়ার জন্য ওয়াজ মাহফিলের নাম করে একের পর এক নিত্য নতুন তর্ক বিতর্কের জন্ম দিচ্ছেন। যার সাথে প্রকৃত ইসলামের আদৌ কোন সম্পর্ক নেই।

মুফতি গিয়াস উদ্দিন তাহেরী’র গাওয়া “অ’মুরশিদ অউ অউ ও ও” (‘মুরশিদ আমার’) গানটি ইতিমধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে যা দেশের বিভিন্ন ধর্মের মানুষ তাদের ঈদ পূজা-পার্বণ এবং পিকনিকে বাজানো হচ্ছে।

এরপর সে ধর্মের নামে দোহায় দিয়ে “আল্লাহর ধন রাসূলকে দিয়ে আল্লাহ গেছেন গায়েব হইয়া” এমন কুফরি কথাবার্তা বলে দেশের সাধারণ মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছেন বলে অনেকের অভিমত।

তিনি ওয়াজের ময়দান কে কনসার্ট, কমেডি শো হিসেবে বেঁচে নিয়েছে। ওয়াজের বায়ানে কোনো রকম কোরআন ও হাদিসের আলোকে আলোচনা না করে শুধু মাত্র গলার চাপাবাজী আর ডায়লগ বলতে বলতে পুরো মাহফিল শেষ করে দেয়।

তিনি তার ওয়াজে বলেন, “চা খাচ্ছি; খাবেন? একটু ঢেলে দিই” “তাহেরী’র মুখ দিয়ে যেটা বের হয়; সেটা মার্কেট পেয়ে যায়” “আমি কি কাউকে গালি দিয়েছি? কারো বিরুদ্ধে বলছি? তারপরও সকালে উঠে একদল বলবে- তাহেরী ভালা না, আমিও বলি- আমি তো ভালা না, ভালা লইয়া থাইকো” “এখন আর চা খায় না, কফি খায় ” ইত্যাদি ডায়লগে পুরো মাহ্ফিল কে নাটকের মঞ্চ বানিয়ে দেন।

দেশের বিভিন্ন জেলার আলেম-ওলামারা সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করছেন বলে সূত্রে জানা যায়।

বাংলাদেশ সরকারের বিশেষ গোয়েন্দা বিভাগ ইতোমধ্যে মাঠে নেমেছেন গিয়াস উদ্দিন তাহেরীর বিরুদ্ধে তথ্য-প্রমাণ সংগ্রহ করতে।

দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মুফতি গিয়াস উদ্দিন তাহেরী ওয়াজ মাহফিলের নামে নাচানাচি ও গান-বাজনা করে থাকে। সেখানে ইসলামের এবং কোরআন হাদীসের কোন কথাই তিনি বলেন না। গান-বাজনার পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন আলেমদের নিয়ে সমালোচনায় বেশি ব্যস্ত থাকেন। এবং চিৎকার চেঁচামেচির মাধ্যমে যুবসমাজকে ধর্মীয় সহিংসতা উস্কে দেওয়ার অভিযোগ রযেছে তার বিরুদ্ধে।

পবিত্র ও শান্তির ধর্ম ইসলামকে মানুষের কাছে হাসির পাত্র বানিয়ে দিচ্ছে এই কথিত মুফতি গিয়াস উদ্দিন তাহেরী এমন অভিযোগ করেছেন দেশের আলেম সমাজের প্রতিনিধিরা।

গোয়েন্দা সংস্থার বিভিন্ন দপ্তর হতে তাহেরীর(mufti gias uddin taheri)’র বিরুদ্ধে গোপন তদন্ত শুরু হয়েছে। যেকোনো মুহূর্তে বাংলাদেশের ওয়াজের ময়দান হতে নিষিদ্ধ হতে পারেন, এই বিতর্কিত বক্তা গিয়াস উদ্দিন তাহেরী।

Related News
- Advertisment -

Popular News

error: Content is protected !!