Monday, May 20, 2024
HomeNewsমহেশখালীর ইতিহাসে সর্ববৃহৎ ইয়াবা চালান; ৬ লাখ ২২ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার

মহেশখালীর ইতিহাসে সর্ববৃহৎ ইয়াবা চালান; ৬ লাখ ২২ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার

মহেশখালী থানা পুলিশের অভিযানে ৬ লাখ ২২ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধারের খবর পাওয়া গেছে।

murder2

এসময় প্রায় পুড়ানো অবস্থায় ৩টি মোটর সাইকেল ও একটি প্রাইভেট কার জব্দ করা হয়। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

২৮ মার্চ (রোববার) দিবাগত রাত ২ টায় দিকে মহেশখালীর পৌরসভা সিকদার পাড়া এলাকার মাওলানা জকরিয়ার পূত্র সালাহ উদ্দিনের প্রাইভেট কারে লুকিয়ে রাখা ও-ই সব ইয়াবা উদ্ধার করা হয়ছে বলে নিশ্চিত করেন মহেশখালী থানার ওসি আব্দুল হাই। উদ্ধার করা ইয়াবার মূল্যে প্রায় ৯ কোটি টাকা।

সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে মহেশখালী পৌরসভার মেয়র মকছুদ মিয়া ও তার চাচাতো ভাই সালাহ উদ্দিনের সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। তার পেক্ষিতে দুর্বৃত্তরা গত রাতে মকছুদ মিয়া’র সমর্থকের উপর গুলি করে। এতে গুলিবিদ্ধ হন নুর হোসেন (৪০), কাউছার(৩০) ও ভূবন(৩৫) নামের মকছুদ মিয়ার তিন সমর্থক। তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানা যায়।

এই ঘটনার জের ধরে দুর্বৃত্তরা সালাহ উদ্দিনের গ্যারেজে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে সেখান থেকে বিপুল পরিমান ইয়াবা উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত রাত ২টার দিকে মহেশখালী পৌরসভার মেয়রের কার্যালয়ে পাশে গুলাগুলির খবর পেলে মহেশখালী থানার ওসি আব্দুল হাই এর নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে যায় মহেশখালী থানা পুলিশ। পরে এ ঘটনার অনুসন্ধান করতে গিয়ে সন্দেহভাজন ঘটনার পরিকল্পনাকারী পৌরসভার মাওলানা জাকারিয়ার পুত্র সালাহ উদ্দিনের সন্ধান করতে থাকে পুলিশ। ঘটনার অনুসন্ধানে মাঠে নামে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মহেশখালী সার্কেল মোঃ জাহেদুল ইসলাম ও মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আব্দুল হাই র নেতৃত্বে একদল পুলিশ।

ইয়াবা

তখন পুলিশের কাছে খবর আসে সালাহউদ্দিন’র গ্যারেজে কে বা কারা আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। এ সংবাদ পাওয়ার পর দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যান পুলিশের টিম। আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। তখন তল্লাশি চালালে ইয়াবার অস্তিত্ব পায় পুলিশ। গাড়ীর পিছন থেকে অক্ষত অবস্থায় ৪লাখ ২ হাজার ইয়াবা ও আংশিক পুড়ানো অবস্থায় ২লাখ ২০ হাজার ইয়াবাসহ মোট ৬লাখ ২২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

তবে কে বা কারা গ্যারেজে আগুন ধরিয়ে দিছে তা এখনো নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।

মহেশখালী থানার ওসি আব্দুল হাই জানান, মহেশখালীর ইতিহাসে সর্ববৃহৎ ইয়াবা চালান উদ্ধার এটি। ইয়াবার উৎস এবং এর সঙ্গে কে বা কারা জড়িত আছে তা বের করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Related News

1 COMMENT

  1. […] মাদ্রাসার;বোর্ডের সিদ্ধান্ত আজ মহেশখালীর ইতিহাসে সর্ববৃহৎ ইয়াবা চাল… হেফাজতের দখলে ছিল মহেশখালীর রাজপথ; […]

Comments are closed.

- Advertisment -

Popular News

error: Content is protected !!