Monday, May 27, 2024
HomeNewsতৃতীয় দিনের মতো বড় মহেশখালী ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা উপহার বিতরণ

তৃতীয় দিনের মতো বড় মহেশখালী ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা উপহার বিতরণ

তৃতীয় দিনের মতো বড় মহেশখালী ইউনিয়নে আসন্ন পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার দেওয়া শুভেচ্ছা উপহার বিতরণ র্কাযক্রম অব্যাহত রয়েছে।

গত ৩০ এপ্রিল (শুক্রবার) বড় মহেশখালীতে করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া সিএনজি, টমটম, মিশুক গাড়ি সহ ১০০ জন পরিবহন চালকদের মাঝে নগদ সহায়তা প্রদান করার মধ্যে দিয়ে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়।

০৩ মে (সোমবার) বড় মহেশখালী ইউনিয়নের অসহায় হতদরিদ্র ছিন্নমূল মানুষের মাঝে জনপ্রতি ৪৫০/- টাকা হারে মোট ১,৭০৪ (এক হাজর সাত শত চার) জনকে এ শুভেচ্ছা উপহার বিতরণ করা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বড় মহেশখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এনায়েত উল্লাহ বাবুল। বড় মহেশখালী ইউনিয়ন পরিষদের সকল মেম্বার, ডিজিটাল তথ্য ও সেবা কেন্দ্রের উদ্যোক্ত, গ্রাম আদালত সহকারী, আনসার-ভিডিপি সদস্য, গ্রাম পুলিশ সহ প্রিন্ট মিডিয়া ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিককর্মী উপস্থিত ছিলেন।

গত ৩০ এপ্রিল (শুক্রবার) এই কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বড় মহেশখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এনায়েত উল্লাহ বাবুল।

সূত্রে জানা যায়, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে এবং কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ও মহেশখালী উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় করোনাকালীন সময়ে অসহায় দুঃস্থ ও কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের জন্য মহেশখালী উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ২০ লাখ টাকা, মহেশখালী পৌরসভার জন্য ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্ধ দিয়েছে সরকার। প্রতি ইউনিয়ন পাবে ২লাখ ৫০ হাজার টাকা করে।

এছাড়াও ঈদ উপলক্ষে ভিজিএফ থেকে মহেশখালী ৮ ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার জন্য ২৫৯২১টি পরিবারের জন্য ৪৫০/-(জনপ্রতি চারশত পঞ্চাশ টাকা) হারে মোট-১,১৬,৬৪,৪৫০/- (এক কোটি ষোল লক্ষ চৌষট্টি হাজার চারশত পঞ্চাশ টাকা) বরাদ্ধ দিয়েছে সরকার। উক্ত বরাদ্ধ থেকে প্রতিটি ব্যক্তি পাবেন নগদ ৪৫০ টাকা হারে।

বড় মহেশখালী ইউনিয়ন পরিষদেরর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এনায়েত উল্লাহ বাবুল বলেন, করোনাকালে কর্মহারা বিভিন্ন পেশার সমাজের অস্বচ্ছল ব্যক্তিরা এই তালিকায় অগ্রাধিকার পাবেন। ৩০ এপ্রিল (শুক্রবার) থেকে বড় মহেশখালী ইউনিয়নে বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আজ ০৩ মে (সোমবার) বড় মহেশখালী ইউনিয়নের ১,৭০৪ (এক হাজার সাত শত চার) জনকে জনপ্রতি ৪৫০/- টাকা হারে বিতরণ করা হয়েছে। এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

তিনি আরও বলেন, কোনো স্বজনপ্রীতি ছাড়া বড় মহেশখালী ইউনিয়নে করোনা পরিস্থিতিতে যারা প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত, তাদের তালিকা তৈরি করে যাচাই-বাছাই পূর্বক এ সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।

তিনি বড় মহেশখালী ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনসাধারণ কে করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে স্বাস্থ্য বিধিএবং সরকারি নির্দেশনা মেনে চলতে আহবান জানান।

উল্লেখ্য, মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক বর্তমানে অসুস্থ এবং তিনি ঢাকায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মহেশখালী উপজেলার দুর্দশাগ্রস্থ পরিবারকে সহযোগীতা করার জন্য প্রশাসনের সকল স্তরে সব সময় দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন। তাঁর পরামর্শে সমস্ত উপজেলায় আরো ত্রাণ কার্যক্রম বৃদ্ধির চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে, এছাড়া মাননীয় সংসদ সদস্য মহোদয় সমাজের স্বচ্ছল ব্যাক্তিদেরকে দেশের এই দুর্যোগকালীন সময়ে অসহায় মানুষদের সহায়তা প্রদান করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

মহেশখালী উপজেলার সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ ও করোনাকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এ কার্যক্রমের আনন্দিত ও তাঁর জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করছেন এবং একইসাথে মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব আশেক উল্লাহ রফিক মহোদয়ের দ্রুত রোগমুক্তির জন্য মহান আল্লাহর দরবারে দোয়া কামনা করেন।

Related News
- Advertisment -

Popular News

error: Content is protected !!