Tuesday, April 23, 2024
HomeNewsBangladeshসারাদেশে কঠোর লকডাউন ঘোষণা

সারাদেশে কঠোর লকডাউন ঘোষণা

করোনার ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে ১৪ এপ্রিল (বুধবার) থেকে সারাদেশে এক সপ্তাহের সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। এ সময় বন্ধ থাকবে দেশের সব সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান।

সোমবার (১২ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দিকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে জরুরি সেবা ছাড়া, সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিল্প কলকারখানা চালু থাকবে বলে জানান। ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত এ বিধিনিষেধ বলবৎ থাকবে।

এর আগে গত ৯ এপ্রিল (শুক্রবার) দুপুরে সংবাদিকদের টেলিফোনে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানান, করোনা ঠেকাতে গত ২৯ মার্চ থেকেই মানুষকে সতর্ক করা হচ্ছে। ৪ এপ্রিলের প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমেও জনমত তৈরি, মাস্ক পরা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাসহ নানা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তবে যেভাবে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঘটছে, কঠোর লকডাউনের মাধ্যমেই এটি ঠেকাতে হবে বলে বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, কঠোর এই লকডাউনের সময় জরুরি সেবা ছাড়া সকল অফিস-আদালত-কলকারখানা সবকিছু বন্ধ রাখতে হবে।

দোকানপাট খোলা রাখার ব্যাপারে ব্যবসায়ীদের আন্দোলন নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন,

তাদের জন্য মার্কেট খোলা রাখা হয়েছে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত। এরপরই এক সপ্তাহ কড়া লকডাউন প্রয়োজন। কঠোর লকডাউন না হলে করোনার বিস্তার ও মৃত্যুর সংখ্যা ঠেকানো যাবে না।

সংক্রমিত মানুষের সংস্পর্শে এলে করোনা ছড়াবেই জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এর ফলে এখন কঠোর লকডাউনের কোন বিকল্প নেই বলে জানান তিনি। কঠোর লকডাউনের মাধ্যমে করোনা সংক্রমন কমানো সম্ভব বলে জানান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, গত এক সপ্তাহ যাবত দেশে করোনা সংক্রমণের হার দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে। গত একদিন আগেও দেশে করোনায় প্রাণ হারিয়েছে ৭৭ জন এবং মোট প্রাণহানি হয়েছে ৯৬৬১ জনের। ঐদিন নমুনা পরিক্ষা করা হয় ২৬০৭৭ জনের যার মধ্যে নতুন রোগীর সংখ্যা ছিল ৫৩৪৩ জন। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার অবস্থা খুব ভয়াবহ। হাসপাতাল গুলো খালি নেই। অক্সিজেন এর সিলিন্ডার না পাওয়ায় রোগীদের আর্থনাদ বেড়েই চলেছে।

বাংলাদেশে কোরোনা পরিস্থিতি; এ পর্যন্ত কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে ৬৭৮৯৩৭ জনের এবং ২৪ ঘন্টায় সুস্থ ৩৮৩৭ জন। সুস্থতা হার বিবেচনায় বাংলাদেশ অন্যান্য দেশ থেকে একটু এগিয়ে। এ পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনা থেকে মোট সুস্থ হয়েছে ৫৭২৩৭৮ জন।

সার্বিক বিবেচনায় বাংলাদেশ সরকার তাই সারা দেশে পুনরায় লকডাউনের ঘোষণা দেন।

Related News

4 COMMENTS

Comments are closed.

- Advertisment -

Popular News

error: Content is protected !!