Monday, May 20, 2024
HomeNewsমা'হাদ আন-নিবরাসে জেলার সর্ববৃহৎ হিফজুল কুরআন সম্মাননা

মা’হাদ আন-নিবরাসে জেলার সর্ববৃহৎ হিফজুল কুরআন সম্মাননা

স্টাফ রিপোর্টারঃ

মা’হাদ আন-নিবরাসে ককসবাজার জেলার সর্ববৃহৎ হিফজুল কুরআন সম্মাননা অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

জেলার ব্যতিক্রমধর্মী দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মা’হাদ আন-নিবরাস-এর সহকারী পরিচালক মাওলানা আনসারুল্লাহ ও শিক্ষা পরিচালক মাওলানা ইবরাহিম খলিল-এর যৌথ সঞ্চালনায় এবং প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মাওলানা জিয়াউল হক-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সম্মাননা অনুষ্ঠানে মা’হাদের সান্নিধ্যে সদ্য হিফ্‌জ সম্পন্নকারী ৩৫জন হাফেজে কুরআনকে দস্তারে ফজিলত, ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়।

০৪ ডিসেম্বর (শনিবার) অনুষ্ঠিত উক্ত দস্তারে ফজিলত প্রদানের পূর্বে মা’হাদের শিক্ষার্থীদের মনোজ্ঞ পরিবেশনায় ছিল কুরআন তিলাওয়াত, ইসলামি সংগীত এবং আরবি, ইংরেজি ও বাংলা বক্তব্য উপস্থাপন।

শিক্ষার্থীদের অসাধারণ পরিবেশনায় মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন উপস্থিত সকলেই।

অনুষ্ঠানে প্রধান মেহমান হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জামেয়া দারুল মা’আরিফ আল-ইসলামিয়া’র নায়েবে মুদির আল্লামা মুহাম্মদ ফুরকানুল্লাহ খলিল, বিশেষ মেহমান হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত হাফেজ ও ক্বারি ঢাকা যাত্রাবাড়ীস্থ তাহফিজুল কুরআন ওয়াসসুন্নাহ মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হাফেজ ক্বারি নাজমুল হাসান, ককসবাজার আদর্শ মহিলা কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ফরিদ আহমদ চৌধুরী, ককসবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মাহমুদুল হক, বিশিষ্ট লেখক, গবেষক ও মিডিয়াব্যক্তিত্ব মাওলানা রুহুল আমিন সাদী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মাওলানা মুফতি হুমায়ূন কবির, মাশরাফিয়া তাহফিজুল কুরআন মাদ্‌রাসার পরিচালক হাফেজ সালামতুল্লাহ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মাওলানা শফিউল্লাহ কুতুবী, বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট টিমে টেস্ট খেলোয়াড় হিসেবে সদ্য অভিষিক্ত ইয়াসির আলী রাব্বির পিতা জনাব শওকত আলী চৌধুরী, ককসবাজার জজ কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ও মা’হাদ আন-নিবরাসের ছাত্রাভিভাবক নেজামুল হক, টেকনাফ রঙিখালী ফাজিল মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক ও মা’হাদ আন-নিবরাসের ছাত্রাভিভাবক মাওলানা কবির সিদ্দিকী।

প্রধান মেহমান আল্লামা মুহাম্মদ ফুরকানুল্লাহ খলিল বলেন, প্রতিষ্ঠার মাত্র তিন বছরের শেষান্তে মা’হাদের ২য় হিফজুল কুরআন সম্মাননায় ৩৫জন এবং ১ম সম্মাননা অনুষ্ঠানে ২১জন হাফেজে কুরআনের বিশাল কাফেলা তৈরি, শিক্ষার্থীদের আরবি, ইংরেজি ও বাংলা ভাষায় বক্তৃতা ও তাদের উচ্চারণভঙ্গি সত্যিই প্রশংসাযোগ্য। জামেয়া দারুল মা’আরিফ আল-ইসলামিয়া চট্টগ্রামের আদলে তাঁরই কৃতি ছাত্র মাওলানা জিয়াউল হক কর্তৃক কক্সবাজার জেলায় প্রতিষ্ঠিত মা’হাদ আন-নিবরাসের অগ্রযাত্রাকে জামেয়ারই সফলতা মনে করেন তিনি। তিনি আরও বলেন, এখানকার উত্তীর্ণ ছাত্ররা দেশ ও জাতি গঠনে ভবিষ্যতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে, ইনশাআল্লাহ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ক্বারি নাজমুল হাসান বলেন, মা’হাদের ছাত্রদের তিলাওয়াতের মান খুবই চমৎকার। বিশেষ পরিচর্যা পেলে এরা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারবে। সেজন্যে সবরকমের সহযোগিতারও তিনি আশ্বাস দেন।

খতিব অধ্যক্ষ মাওলানা মাহমুদুল হক হাফেজে কুরআনদের সম্বোধন করে বলেন, প্রতিদিন তোমাদের একপারা মুখস্থ ও একপারা করে নাজেরা পড়তে হবে। না হয়, একসময় কুরআনের এই হিফজ ধরে রাখতে পারবে না। আর তোমাদের ভালো আলেমও হতে হবে। দীর্ঘ পঞ্চাশ বছর শিক্ষকতা পেশার অভিজ্ঞতার আলোকে প্রয়োজনে মা’হাদে সময় দেওয়ারও ঘোষণা দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জামেয়া দারুল মা’আরিফ আল-ইসলামিয়া চট্টগ্রামের সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা আফিফ ফুরকান মাদানী, ককসবাজার লাইট হাউস দারুল উলূম মাদরাসার পরিচালক মাওলানা মুহাম্মদ আলী, ককসবাজার দারুল আমান একাডেমীর পরিচালক মাওলানা হাশেম মাহমূদ, তানযীমুল উম্মাহ হিফজ মাদরাসা ককসবাজার শাখার প্রিন্সিপাল হাফেজ রিয়াদ হায়দার, ককসবাজার দারুল আরকম তাহফিজুল কুরআন মাদরাসার পরিচালক মাওলানা হাফেজ ইউনুস ফরাজী, ককসবাজার দারুল কুরআন কমপ্লেক্স এর সহকারী পরিচালক মাওলানা ক্বারী সাইফুল্লাহ কাসেমী, বদরমোকাম জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা আবদুল খালেক নেজামী, ককসবাজার শহীদ তিতুমীর ইনস্টিটিউট জামে মসজিদের খতিব সাংবাদিক হাফেজ মাওলানা আবুল মনজুর, খুটাখালী তমিজিয়া ফাজিল মাদরাসার আরবি প্রভাষক মাওলানা আবুল ফজল,
ঈদগাঁও আলমাছিয়া ফাজিল মাদরাসার প্রভাষক নাজিম উদ্দীন, ককসবাজার বায়তুন নূর জামে মসজিদের খতিব মাওলানা নূরুল হক ফারুকী, ককসবাজার আলিফ-লাম-মিম মসজিদের খতিব মাওলানা আরিফ উল্লাহ, ককসবাজার ইসলামিয়া মহিলা কামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা ইলিয়াস আরমান ও মাওলানা মুহাম্মদ হাসান।

মা’হাদের এই ২য় হিফজুল কুরআন সম্মাননা অনুষ্ঠানে সম্মাননাপ্রাপ্ত ৩৫জন হাফেজে কুরআনের অভিভাবকগণের উপস্থিতি অনুষ্ঠানের প্রফুল্লতা আরও বৃদ্ধি করেছে। সন্তানদের এই অসাধারণ অর্জনে অত্যন্ত সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন তাঁরা।

অনুষ্ঠানে ককসবাজার জেলার দুজন কৃতি সন্তান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নবগঠিত ঈদগাঁও উপজেলার ড. মুফতি হুমায়ূন কবির খালভী ও কুতুবদিয়া উপজেলার ড. মাওলানা শফিউল্লাহ কুতুবীকে সম্প্রতি পিএইচডি অর্জন করায় সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

Related News
- Advertisment -

Popular News

error: Content is protected !!