Monday, May 20, 2024
HomeNewsনেজামে ইসলাম পার্টি ও ইসলামী ছাত্রসমাজের শোক

নেজামে ইসলাম পার্টি ও ইসলামী ছাত্রসমাজের শোক

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ

দেশের অন্যতম সংগ্রামী আলেমেদ্বীন, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির, জামিয়া আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারীর শায়খুল হাদীস আল্লামা হাফেজ জুনাইদ বাবুনগরী রহ. এর ইন্তেকালে গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর ও কক্সবাজার জেলা আমীর মাওলানা হাফেজ ছালামতুল্লাহ, নায়েবে আমীর মাওলানা আ. হ. ম নুরুল কবির হিলালী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ ইয়াছিন হাবিব, যুগ্ম-সম্পাদক মাওলানা আব্দুর রহমান জিহাদী, সহ-সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ফরিদুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মাহবুব উল্লাহ নোমানী, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ডা. মঈন উদ্দীন গাজী, অর্থ সম্পাদক মাওলানা নুরুল হক চকোরী, কক্সবাজার শহর আমীর মাওলানা মাওলানা খালেদ সাইফী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সাইফুল ইসলাম সাইফী।

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসমাজের কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ-সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর, কক্সবাজার জেলা সভাপতি হাফেজ শওকত আলী, সহ-সভাপতি মুহাম্মদ আব্দুল হামিদ, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ দিদারুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ আতাউল্লাহ প্রমুখ।

এক শোক বার্তায় নেতৃবৃন্দরা বলেন, আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী রহ. ছিলেন, জাতির সংগ্রামী অভিভাবক ও বিপ্লবী রাহবার। বিদগ্ধ মুহাদ্দিস ও ঈমানী চেতনাদীপ্ত সংগ্রামী এ ব্যক্তিত্ব সারাটি জীবন ইলমে নবভীর দরস-তাদরীসে আত্মনিবেদিত ছিলেন। সুদীর্ঘকাল যাবৎ উপমহাদেশের অন্যতম বৃহৎ ও প্রাচীনতম ইসলামী শিক্ষাকেন্দ্র, উম্মুল মাদারিসখ্যাত জামিয়া আহলিয়া দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারীর অন্যতম মুহাদ্দিস, শিক্ষা পরিচালক, সহকারী মহাপরিচালকসহ বিভিন্ন গুরু দায়িত্ব পালন করেছেন দক্ষতার সাথে।

শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর ইন্তেকালের পর থেকে জীবনের শেষ সময় পর্যন্ত তিনি জামিয়া আহলিয়া হাটহাজারীর শায়খুল হাদীস পদে অভিষিক্ত ছিলেন। তিনি দীর্ঘসময় হেফজাতে ইসলামের মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আমীরে হেফাজত আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর ইন্তেকালের পর থেকে তিনি দেশের সর্ববৃহৎ এ আধ্যাত্মিক ও দ্বীনি অরাজনৈতিক সংগঠনটির আমীরের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

তিনি বহু মাদ্রাসা পরিচালনা ও প্রতিষ্ঠায় নিষ্ঠাপূর্ণ ভূমিকা পালন করে কুরআন-সুন্নাহর শাশ্বত পয়গাম ছড়িয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে তিনি যে অসামান্য অবদান রেখে গিয়েছেন তা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।
আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী রহ. ছিলেন, আধ্যাত্মিক ও বিপ্লবী চেতনায় বলীয়ান এক মর্দে মুজাহিদ। জীবন সায়াহ্নকাল পর্যন্ত হাদীসে নবভীর দরস প্রদান এবং সমাজ শুদ্ধির নিরবচ্ছিন্ন কর্মপ্রয়াসে সরব ছিলেন। সেই সাথে শিরক–বিদআত এবং খোদাদ্রোহী অপশক্তি নাস্তিক-মুরতাদদের সবধরণের অপতৎপরতা প্রতিরোধে তিনি ছিলেন আপসহীন সিপাহসালার এবং সংগ্রামী রাহবার। ২০১৩ সালে নাস্তিক-মুরতাদ প্রতিরোধে আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর সাথে তিনিও সাহসী গর্জন দিয়ে আপসহীনতার সাথে যে যুগান্তকারী কর্মসূচী বাস্তবায়ন করেছেন তা ঈমানী আন্দোলনে যুগ-যুগান্তরে প্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে। অসংখ্য আলেম-ওলামার উস্তায, বর্ষীয়ান এ আলেমেদ্বীনের ইন্তেকালে আমরা একজন প্রাজ্ঞ শায়খুল হাদীস, সংগ্রামী অভিভাবক, সাহসী রাহবার ও আপসহীন সিপাহসালারকে চিরতরে হারালাম। আমরা আল্লাহর দরবারে মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করি এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাই।

উল্লেখ্য, শায়খুল হাদীস আল্লামা হাফেজ জুনাইদ বাবুনগরী রহ. বৃহস্পতিবার (১৯ আগষ্ট) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ইন্তেকাল করেন-।

ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

৬৭ বছর বয়সি দেশের অন্যতম এ শীর্ষ আলেমেদ্বীন দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগ, কিডনি ও ডায়াবেটিসসহ বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন। সংগ্রামী এ আলেমেদ্বীনের ইন্তেকালে দেশজুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Related News
- Advertisment -

Popular News

error: Content is protected !!