Monday, May 27, 2024
HomeNewsBangladeshচেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে লোহাগাড়ায় খামারবাড়ি দখল ও মালামাল লুটের অভিযোগ

চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে লোহাগাড়ায় খামারবাড়ি দখল ও মালামাল লুটের অভিযোগ

বাবার খামারবাড়িতে স্বামী ও তিন সন্তান নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন কবি শারমিন রহমান। গত ৬ নভেম্বর মারা যান তিনি। এর এক মাসের মাথায় ওই খামারবাড়ির প্রায় দশ লাখ টাকার মালামাল লুট ও বাড়িটি দখলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় চুনতি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীনের বিরুদ্ধে।

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার  চুনতি ইউনিয়নের সুফিনগর লুতুমিয়ার ঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে শারমিন রহমানের বড় বোন সানজিদা রহমান স্থানীয় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এতে উল্লেখ করা হয়, শারমিন রহমানের মৃত্যুর পর গত ২ ডিসেম্বর ও ৭ ডিসেম্বর দুই দফা হামলা করে খামারবাড়ি দখল করা হয়।

অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। তাঁর ছেলে এরশাদুর রহমান উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।

শারমিন রহমানের বাবা লুৎফর রহমান উপজেলার চুনতি ইউনিয়নের মুনসেফ বাজারের বাসিন্দা। ২০১৬ সালে মারা যান তিনি।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘২০ বছর আগে জায়গাটি আমরা চারজন মিলে শারমিন রহমানের বাবার কাছ থেকে কিনেছিলাম। সেখানে কোনো খামার বাড়ি ছিল না।’

থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া সানজিদা রহমান প্রথম আলোকে বলেন, সুফিনগরের লুতুমিয়ার ঘোনা এলাকায় ১৯৭০ সালে নিজের জায়গায় খামারবাড়ি নির্মাণ করেন তাঁর বাবা লুৎফর রহমান। দুই বছর ধরে ওই খামার বাড়িতে তাঁর ছোট বোন শারমিন রহমান স্বামী ও তিন সন্তান নিয়ে বাস করছিলেন। সম্প্রতি তাঁর বোন শারমিন ক্যানসারে ভুগে মারা যান। এর এক মাসের মধ্যে ওই খামারবাড়িতে দুই দফা হামলা চালান ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন ও তাঁর সহযোগীরা। এ সময় তাঁরা খামার বাড়ির আসবাবপসহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল তিনটি ট্রাকে করে তুলে নিয়ে যান। এখন বাড়িতে চার কক্ষের একটি টিনশেড ভবন ছিল। বাড়িটি দখলে নিয়ে ভবনটি ভেঙে ফেলেছেন তাঁরা।

ওই খামারবাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, ভেঙে ফেলা ভবনের ধ্বংসাবশেষ পড়ে আছে। কাটা হয়েছে বেশ কয়েকটি গাছ। গাছ ও খামারবাড়ির মালামাল নিয়ে যাওয়ার জন্য টিলা কেটে তৈরি করা হয়েছে রাস্তা।

এ বিষয়ে লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতিকুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ‘লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ঘটনার তদন্ত চলছে। এরপর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Related News
- Advertisment -

Popular News

error: Content is protected !!