Monday, February 26, 2024
HomeEditorialআজ বাবা দিবস

আজ বাবা দিবস

পৃথিবীর সকল পুরুষ খারাপ হয়তে পারে, কিন্তু কোন জন্ম দাতা বাবা কখনো খারাপ হতে পারেনা।(সংগৃহীত)
“বাবা” এই শব্দটা তো একটা বৃক্ষ। একটা বড় গাছের মতন। আপনি যতই ক্লান্তি এই গাছের নিছে আসুন না কেন, যত দোষ করে এই গাছের নিচে দাড়ান না কেন, এই গাছ আপনাকে কখনো তাড়িয়ে দিবেনা। এই গাছের ছায়া ও হালকা বাতাসে আপনি স্বস্তি ভোগ করতে পারবেন। একটু আরাম পাবেন। কত মায়া যে এই গাছটার আপনার প্রতি। কত মায়া সেটা যাদের বাবা জীবিত আছে সেই সন্তান গুলোই বুঝে।
বাবারা নিজের জন্য কৃপণ হতে পারে কিন্তু তার স্ত্রী সন্তানের জন্য কৃপণ নয়। আপনার বাবা ঠিক কবে একটা দামি কাপড় কিনেছে আপনার মনে আছে? হয়তো সেই যৌবনের সময় কিনেছিলো। এখন কি আপনার বাবার কেনার সামর্থ্য নেই? আছে অবশ্যই আছে। শুধু কেনেনা কারণ এই টাকাটা যদি আমার সন্তানের দরকার হয় কখনো! তাই ওই টাকাটা জমিয়ে রাখেন আপনার জন্য। “মা” রা যদি আপনাকে জন্ম দেয় তাহলে আপনাকে লালন-পালনের দায়িত্ব আপনার বাবার। আজকে আপনি যেমন ইচ্ছে খরচ করছেন, যেখানে ইচ্ছে যাচ্ছেন, যাকে খুশি খাওয়াচ্ছেন পরাচ্ছেন, কখনো কি জিজ্ঞেস করেছেন আপনার বাবার কাছে যে বাবা তুমি এই টাকা কিভাবে আয় করেছো?কত কষ্ট করে আয় করেছেন এইটা আপনার বাবার থেকে খুব ভালো আর কেউ জানেনা।অথচ সেই টাকা আপনি বেপরোয়া খরচ করে চলেছেন। যদি মধ্যবিত্ত/ নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তান হোন তাহলে বেশ ভালো করেই অনুভব করতে পারবেন। আপনি আপনার ক্লাসের নিম্নবিত্ত পরিবারের বন্ধুদের দিকে একটু থাকান, তার কাছে গিয়ে জিজ্ঞেস করুন সে তার খরচ কিভাবে চালায়? দেখবেন সে পারেনা তার বাবার কাছে চাইতে বলতে পারেনা কাউকে মুখ ফুটে বলতে। কারণ সে নিজে বুঝে তার বাবা কত কষ্ট করে টাকা আয় করেন। তার থেকেও তো আপনি অনেক ভালো আছেন। টাকার জন্যে কখনো কষ্ট হয়না। যখন ইচ্ছে পাচ্ছেন।কোনো কিছুর ই অভাব নেই।  তাই বলে কি নিজের ইচ্ছে মতো বেপরোয়া খরচ করবেন?
বাবা-রা কখনো চাই না তার নিজের সন্তানের ইচ্ছাটা অপূর্ণ থাকুক। সব সময় চায় তার সন্তানের ইচ্ছাটা পূর্ণ করতে।কিন্তু অনেক সময় বাবারা পারেন না তার সম্বল দিয়ে। বাবারা নিজেরা ছেড়া জুতো পায়ে দিয়ে আপনার জন্যে নতুন জুতো কিনতে যায়। কখনো কি জিজ্ঞেস করেছেন তোমার জুতো গুলো ছেড়া কেন? এক জোড়া কেন কিনেন নি। বাবারা এমনই। নিজে কষ্ট পাবে, ভিতরে ভিতরে ডুকরে ডুকরে কান্না করবে তবুও তা আপনাকে বুঝতে দেবেনা। আপনার বাবা নিজের শরীর নিয়ে যতই কষ্ট পাক কিন্তু চিকিৎসা করেন না, কিন্তু আপনার কিছু হলেও তখন তিনি চান যেন পৃথিবীর সেরা ডাক্তার আপনাকে চিকিৎসা করায়।
হয়তো আপানকে মাঝে মাঝে একটু বকা দেয়, কিন্তু আপনার একটু সময়ের অনুপস্থিতি আপনার বাবাকে অনেক কষ্ট দেয়, অনেক। বাবা যখন বাসায় আসেন তখন সর্ব প্রথম আপনাকেই ডাক দেয়, কইরে তুই।  কারণ এই দুনিয়ার বাকি সব কিছু এক পাল্লায় আর আপনি এক পাল্লায় আপনার বাবা দুনিয়া সমস্ত কিছু বাদ দিয়ে আপনাকেই বেঁচে নিবে।
আপনি যেদিন জন্মগ্রহণ করেছিলেন এই পৃথিবীতে সেই দিন পৃথিবীর সব থেকে খুশি মানুষটার নাম কি জানেন? আপনার বাবা। খোদার কসম করে বলছি পৃথিবীর সকল বাবারা ওই দিন এমন খুশি হয়, যদি কেউ বুক ছিঁড়ে দেখাতে পারতো তাহলে হয়তো নিজের আর্জিটা মিটতো। আপনি যেদিন বাবা হবেন সেই দিন বুঝবেন।
আপনার বাবা আপনার জন্যে এতো কিছু করেন, আপনাকে এত্ত ভালোবাসেন, কত কষ্ট করেন, কত ত্যাগ স্বীকার করেন, তার বিনিময়ে তাদের জন্য আপনার কাছে কখনো কিছু চেয়েছে?
কারণ পৃথিবীতে একমাত্র বাবা-মাই নিঃস্বার্থে তার সন্তানের ভালবাসেন। একমাত্র বাবা-মা ছাড়া আর কেউ না।
চেয়েছেন শুধু একটাই তাও আপনার জন্য।
তাদের শুধু একটাই চাওয়া যদি তারা কখনো মারা যান তাহলে তার সন্তানটা যেন সুখে থাকেন, ভালো থাকেন, তাহলে তারা ওই কবরে নিশ্চিন্তে শান্তিতে থাকবেন। কত্ত টুকু ভালবাসলে বাবা-মারা সন্তান্দের জন্য এমন কামনা করেন। তাই আপনি যেন মানুষের মত মানুষ হয়ে একজন সফল ব্যাক্তি হিসেবে বেচে থাকেন এই চাওয়াটা ছাড়া আর কোন চাওয়া তাদের নেই। তাহলে আপনার কি দায়িত্ব নয় তাদের এই চাওয়াটা পূরণ করতে?
আপনি যখন কোন একটা পথে হাঁটবেন তখন কেউ আপনাকে সঙ্গী দিবেনা, আপনার নিজের জীবনের সঙ্গী ও আপনার সাথে থাকবেনা যদি আপনার সময়টা খারাপ যায়। সকলের ধারে ধারে ঘুরতে পারবেন কিন্তু কেউ আপনাকে সাহায্য করবেনা। কেউ আপনাকে আশ্রয় দিবেনা। কিন্তু বাবা-মা?  তারা তো বাবা-মা। তারা ঠিক আপনাকে কাছল টেনে নিবে। অথচ সেই বাবা-মাকে কত কষ্ট আপনি দিয়েছেন।বিয়ের পর আমরা ভূলে যায় যে কেউ একজন আমাদের জন্ম দিয়েছিল। কেউ একজন আমাদের বড় করেছিল। কেউ একজন আমাদের হাতে হাত দেখে পথচলা শিখিয়েছিল। কেউ একজন আমাদের শিখিয়েছিল কিভাবে মানুষের মত মানুষ হতে হয়। সত্যি আমরা ভূলে যায়। তাদের ছেড়ে পাড়ি জমায় অন্য একটা শহরে। ওই জন্ম দেওয়া মানুষ গুলো কেমন আছে জানতে চায় না। এই রকম সন্তান গুলো কি সুখে আছে? যারা সুখে থাকতে বাবা-মাদের ছেড়ে চলে যায়। তারা কি আদৌ কখনো সুখী হয়?
প্রশ্নটা আপনার কাছেই রেখে গেলাম।
পৃথিবীর সকল বাবার চাইতেও আমার বাবা সেরা বাবা। আমার বাব আমার  জীবনের রিয়েল হিরু।
শুভ বাবা দিবস আব্বু❣️। অনেক ভালবাসি অনেক অনেক। ভালো থেকো সুস্থ থেকো।
লিখা~ Abdullah Al Fatmi Nahi
Related News
- Advertisment -

Popular News

error: Content is protected !!